আপলোড: দূর ভবিষ্যতের এক ডিজিটালাইজড পরকালের গল্প! [রিভিউ]

যদি মৃত্যুর পর প্রত্যেকেই নিজেদের পছন্দ মতো পরকাল বেছে নেয়ার সুযোগ পেত, তাহলে কেমন হতো বলুন তো?

গল্পটা অদূর কোনো ভবিষ্যতের।
এমন কোনো সময়ের যেখানে সবক’টা যানবাহন অটো চলে, হাতে পড়ে থাকা স্মার্ট ঘড়ির দিকে তাকিয়ে কোনো মেসেজ মুখে বললে, সেটা কনভার্টেড হয়ে ওপারের মানুষটার কাছে টেক্সট আকারে চলে যায়। ভিডিও কল করতে হোক বা কোনো ভিডিও বা মুভি দেখতে হোক, আঙুলের ইশারাতেই সামনে হাজির হবে স্ক্রিন।

কিন্তু এসব কিছু ছাপিয়ে যে ব্যাপারটা সবথেকে একইসাথে আকর্ষনীয় ও ভয়াবহ বলা যায়, তা হলো, যে কেউ চাইলেই একটা নির্ধারিত পেমেন্টের মাধ্যমে বেছে নিতে পারে নিজের পছন্দসই পরকালের প্যাকেজ। নিজের স্মৃতিকে কম্পিউটারের ডাটায় আবদ্ধ করে সাজিয়ে নিতে পারে পরকালের সুরক্ষিত জীবনে। আর এ প্রক্রিয়া বলা হয়ে থাকে, ‘আপলোড’।

বলছিলাম, অ্যামাজন প্রাইমের নতুন অরিজিনাল সিরিজ আপলোড এর কথা। গত ১ মে-তে আসা এ সিরিজটি গতকালই বিঞ্জ দিয়ে নিলাম। আর আমি সত্যিই মুগ্ধ।

সিরিজের মেইন থিম তো উপরেই বলেছি। এবার কাহিনীটা আরেকটু খুলে বলি।

নাথান নামের ছেলেটা নিজের জীবনের সবথেকে সেরা সময় কাটাচ্ছে। কোডার হিসেবে বেশ কামাচ্ছে, দেখতে সুদর্শন ও চাল-চলনে স্মার্ট বলে প্রেমিকার অভাব তার কোনোকালেই ছিল না। কিন্তু মনের মানুষ এখনো খুঁজে না পাওয়া, নাথানের যেমন বাইকে বা গাড়িতে ঘুরতে ভালো লাগতো, তেমনি একেক সময় একেক সুন্দরীকে ডেটিং করতেও।

তবে বর্তমান প্রেমিকা ইনগ্রিড নাথানের ব্যাপারে যেন একটু বেশিই সিরিয়াস হয়ে পড়ে, আর নাথানও সেটা এড়াতে পারছে না। কিন্তু সবকিছুতে অবসান ঘটে যখন ইহকালে মা, প্রেমিকা ইনগ্রিড ও বেস্টি ও বিজনেস পার্টনার জিমিকে রেখে হুট করে গাড়ি দুর্ঘটনার মধ্যদিয়ে নাথানের মৃত্যু হয়।

ইনগ্রিড তাকে আপলোড প্রোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত করে দিলে সেখানে আবার জন্ম নেয় আরেক নাথান। অতীতের স্মৃতি ও সম্পর্কের সাথে ছন্নছাড়াভাবে যুক্ত সে নাথানের জীবনে পরকালে দেখা দেয় তার বিশেষ অ্যাঞ্জেল ‘নোরা’ নামের তরুণী। যে কিনা মূলত আপলোড এর কাস্টোমার সার্ভিস রিপ্রেজেনটেটিভ। আর তারপর শুরু হয় নাথানের নতুন জীবন। সে জীবনে আগের জীবনের ভূমিকা কী ছিল?

নাথান আর নোরার মাঝে কেমন সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল ও আরও অনেক অনেক ব্যাক স্টোরি ও টুইস্ট নিয়ে সাজানো হয়েছে পুরো সিরিজ।

অনেকদিন পর কোনো সিরিজ দেখে একইসাথে হাসলাম আর অনেককিছু নতুন করে উপলব্ধি করলাম। ব্ল্যাক মিরর তো কমবেশি সবাই দেখেছেন। স্যাটায়ার, সাই-ফাই ও কমেডি সংমিশ্রণে বানানো এ সিরিজে আমি ব্ল্যাক মিররের ভাইব পেয়েছি। শুধু পার্থক্য একটাই, ব্ল্যাক মিররে হাস্য-রসিকতা সেভাবে থাকে না। কিন্তু এটাতে নানা সিনেই আমি হো হো করে হেসেছি।

সিরিজের চিত্রনাট্য, সিনেমাটোগ্রাফি, সংলাপ ও বিজিএম খুবই মনে ধরেছে আমার৷ আর নাথান আর নোরা চরিত্রের দুজন অভিনেতা তো এক কথায় অসাধারণ। আর সিরিজ ভালো হবেই না কেন বলুন, সিরিজের ক্রিয়েটর যে ‘দি অফিস’ নামক জনপ্রিয় আমেরিকান সিটকমের ক্রিয়েটর গ্রেগ ড্যানিয়েলস।

১০ পর্বের এ সিরিজের প্রতিটি পর্বের দৈর্ঘ্য ২৪-৩০ মিনিট করে, শুধু প্রথম পর্ব মেবি ৪০ মিনিটের। তাই শেষ করতে তেমন সময় লাগবে না। তাহলে আর দেরী কেন? আজই না হয় বিঞ্জ দিয়ে দিন।

Show Title: Upload
Show Status: Running
Network: Amazon Prime
Language: English
Genre: Sci-fi, Satire, Comedy
Runtime:24 – 40 Minutes
Total Season:1
Total Episode:10

সিরিয়াল কিলারের সাথেই থাকুন ❤

নেটফ্লিক্সেস্ট্রেঞ্জার থিংস দেখেছেন তো? যদি কুইজ খেলতে ভালোবাসেন, তাহলে, এক্ষুণি ট্রাই করুন স্ট্রেঞ্জার থিংসের স্ট্রেঞ্জার কুইজ! এছাড়াও ডক্টর হু, লা কাসা ডি পাপেল, গেম অফ থ্রোন্স, ফ্রেন্ডস সহ আরও অনেক অনেক কুইজ তো আছেই!

You may also like...